১১ লাখের গাড়ি মেরামত করতে খরচ ২২ লাখ টাকা!

মানুষের শখের অন্যতম বস্তুগুলোর মাঝে একটি তার গাড়ি। তবে এই শখের গাড়িটি অনেক সময় বিপদের কারণ হয়ে দাঁড়ায়। সম্প্রতি বন্যার পানি ঢুকে শখের গাড়ি খারাপ হয়ে গিয়েছিল এক ব্যক্তির।

পরে সেই গাড়ি মেরামত করতেই ট্রাকে করে নেওয়া হলো সার্ভিস সেন্টারে।

কিন্তু সেখানে নেওয়ার পর গাড়ি মেরামতের জন্য যে অর্থ চাওয়া হলো তাতে চোখ কপালে ওঠে গাড়ির মালিকের। গাড়ি কেনার সময় যা দাম পড়েছিল মেরামতের জন্য লাগবে তার দ্বিগুণ অর্থ।

সম্প্রতি ‘লিংকডইনে’ এমন অভিজ্ঞতার কথা জানিয়েছেন ভারতের দক্ষিণাঞ্চলীয় রাজ্য কর্ণাটকের বেঙ্গালুরুর বাসিন্দা ও গাড়ির মালিক অনিরুদ্ধ গনেশ নামে এক ব্যক্তি। বুধবার (২৮ সেপ্টেম্বর) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়া টাইমস এবং লাইভ মিন্ট।

একাকধি ভারতীয় সংবাদমাধ্যম বলছে, সম্প্রতি বন্যার কবলে পড়ে বেঙ্গালুরুর বিভিন্ন এলাকা। এতে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এমনকি বন্যার পানি ঢুকে বেঙ্গালুরুর বিভিন্ন এলাকায় বাড়িগুলো জলমগ্ন হয়ে পড়ে।

একপর্যায়ে ওই বন্যায় পুরোপুরি পানির নিচে চলে যায় অনিরুদ্ধ গনেশ নামের ওই ব্যক্তির গাড়িটিও। আর এরপর গাড়ি কিছুতেই স্টার্ট নিচ্ছিল না।

একপর্যায়ে পানি থেকে গাড়িটি বের করে ‘সার্ভিস সেন্টার’-এ পাঠান অনিরুদ্ধ। সেখান থেকে গাড়ি মেরামতের আনুমানিক একটি খরচের তালিকা দেওয়া হয় তাকে। আর সেটা দেখেই চোখ কপালে ওঠে অনিরুদ্ধর।

ভুক্তভোগী এই ব্যাক্তি জানান, কেনার সময় গাড়িটির দাম পড়েছিল ১১ লাখ রুপি। কিন্তু গাড়ি মেরামত করতে সার্ভিস সেন্টার থেকে দেওয়া খরচের তালিকা বলছে- গাড়ি মেরামত করতে লাগবে ২২ লাখ রুপি।

এরপরই গাড়ি প্রস্তুতকারী সংস্থার সঙ্গে যোগাযোগ করেন অনিরুদ্ধ।তাদের পক্ষ থেকে দু’দিনের মধ্যে সমস্যার সমাধান করার আশ্বাস দেওয়া হয়। দু’দিনের মাথায় ‘গ্রাহক পরিষেবা (কাস্টমার কেয়ার)’ থেকে অনিরুদ্ধকে ফোন করে বলা হয়,

গাড়ি প্রস্তুতকারক সংস্থা থেকে খারাপ হয়ে যাওয়া গাড়ি সারিয়ে দেওয়া হবে। অনিরুদ্ধকে শুধুমাত্র পাঁচ হাজার রুপি দিলেই হবে।

তবে ১১ লাখের গাড়ি মেরামত করতে ২২ লাখ রুপির লাগার কথা শুনে অবাক হয়েছেন অনেকেই।