উন্নয়ন-দারিদ্র্য বিমোচনে রেকর্ড গড়েছেন প্রধানমন্ত্রী: হুইপ স্বপন

স্বল্প সম্পদ নিয়ে রাষ্ট্র পরিচালনার দায়িত্ব নিয়ে একই সঙ্গে অভূতপূর্ব উন্নয়ন এবং দারিদ্র্য বিমোচনে রেকর্ড সৃষ্টি করে মানবতার অপরিসীম সেবা

করছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ ধরনের যুগপৎভাবে উন্নয়ন ও মানব কল্যাণের ইতিহাস পৃথিবীতে কম বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও জাতীয় সংসদের হুইপ আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী তার বিজ্ঞতা দিয়ে অসাধ্য সাধন করেছেন। দেশ ও জাতির বৃহত্তর স্বার্থে আজ প্রধানমন্ত্রীর পদে শেখ হাসিনা অপরিহার্য হয়ে উঠেছেন।

বৃহস্পতিবার (১ ডিসেম্বর) নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

হুইপ স্বপন বলেন, সব পিতামাতা তার সন্তানকে সাধ্যমতো ভাল খাওয়াতে পছন্দ করেন। তেমনি অধিকাংশ সন্তান তার পিতামাতাকে খাওয়াতে পছন্দ করে। বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার তার পিতা-মাতাকে রান্না করে এক লোকমা ভাত খাওয়ানোর সুযোগ নেই। ঘাতকরা সেই সুযোগ ছিনিয়ে নিয়েছে। এজন্যই শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী হয়ে বাংলাদেশের সব গ্রামে বসবাস করা মুরব্বি নিরন্ন মানুষের মুখে খাবার তুলে দেওয়ার ব্যবস্থা করেছেন।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী বিশ্বাস করেন, নিরন্ন নাগরিক রাষ্ট্রের অর্থে পেট ভরে ভাত খেয়ে তৃপ্তির ঢেকুর তুলে আলহামদুলিল্লাহ উচ্চারণ করলে জাতির পিতার পবিত্র আত্মা শান্তি লাভ করেন। জাতির পিতা বাংলার মানুষের পেট ভরে ভাত খাওয়া এবং সবার মুখে সুখের হাসির জন্য তার জীবন উৎসর্গ করেছেন। জাতির পিতার আত্মার শান্তির জন্য প্রধানমন্ত্রী মুরব্বি গরিবের মুখে খাবার তুলে দেন।

উপজেলা পরিষদ মাঠে এই সম্মেলনের উদ্বোধন করেন নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক অধ্যক্ষ আবুল হাসনাত মো. খায়রুল আনম চৌধুরী সেলিম। উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মো. সানাউল্লাহ বিকম এতে সভাপতিত্ব করেন। সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন- কেন্দ্রীয় কৃষি ও সমবায় সম্পাদক বেগম ফরিদুন্নাহার লাইলী, সংসদ সদস্য মো. একরামুল করিম চৌধুরী, বীর মুক্তিযোদ্ধা মাহমুদুর রহমান বেলায়েত, সংসদ সদস্য ফরিদা খানম সাকী, শিহাব উদ্দিন শাহীন, মেয়র সহীদুল্লাহ খান সোহেল প্রমুখ।