চাঁদের উদ্দেশে যাত্রা করল আরব বিশ্বের প্রথম যান

সংযুক্ত আরব আমিরাতের চন্দ্রযান ‘রশিদ’ চাঁদের উদ্দেশে রওনা দিয়েছে। রোববার (১১ ডিসেম্বর) যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার ক্যাপ ক্যানাভেরালের মহাকাশ কেন্দ্র থেকে এটি যাত্রা করে।

আরব বিশ্বের প্রথম দেশ তা পাঠালো আরব আমিরাত। দেশটির প্রভাবশালী সংবাদমাধ্যম দ্য ন্যাশনাল নিউজের এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানা গেছে।

এতে বলা হয়, মার্কিন মহাকাশযান প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান স্পেসএক্সের ফ্যালকন-৯ রকেটের মাধ্যমে ‘রশিদ’ উৎক্ষেপণ করা হয়। জাপানের মুন ল্যান্ডার হাকুতু-আর মিশনের-১ এর দিকে যাচ্ছে এটি। পরে মুন ল্যান্ডারের মাধ্যমে চন্দ্রপৃষ্ঠে অবতরণ করবে যানটি।

আপাতত আমিরাতের চন্দ্রযান উৎক্ষেপণে সফল হয়েছে। তবে কবে নাগাদ এটি চাঁদে অবতরণ করবে তা বলা যাচ্ছে না। এখন পর্যন্ত পরিচালনা করা চন্দ্রাভিযানের চার ভাগের তিন ভাগই ব্যর্থ হয়েছে।

বিশ্বে এ যাবতকাল সফলভাবে চন্দ্রপৃষ্ঠে অবতরণ করেছে যুক্তরাষ্ট্র, সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়ন এবং চীনের যান। তবে সাম্প্রতিক সময়ে ভারত ও ইসরায়েলের চন্দ্রাভিযান ব্যর্থ হয়েছে।

সাধারণত, চাঁদে কোনো বায়ুমণ্ডল নেই। তাই সেখানে অবতরণ করা বেশ জটিল।

আরব আমিরাতের মহাকাশ সংস্থার মহাপরিচালক সালেম আল মারিও জানান, ‘রশিদ’ সফলভাবে অবতরণ করলেই তাদের মিশন সফল হবে।

তিনি বলেন, এটি অনন্য উৎক্ষেপণ। অদ্যাবধি পরিকল্পনা অনুযায়ী সবকিছু হয়েছে। স্পেসএক্স অসাধারণ প্রতিষ্ঠান। তাদের সব কাজই ভালো। চাঁদে যাওয়ার কঠিন যাত্রা শুরু হয়েছে। এ নিয়ে আমাদের আত্মবিশ্বাস আছে। আশা করি, সব ঠিকঠাকভাবে সম্পন্ন হবে।