জায়েদ খানের অভিযোগে সাইবার ক্রাইমে ইউটিউবারদের তলব

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক ও নায়ক জায়েদ খানের বিরুদ্ধে সোশ্যাল মিডিয়া ও ইউটিউবে আপত্তিকর কনটেন্ট প্রচার করে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে কয়েকজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে ডিএমপির স্পেশাল

ক্রাইম ও সাইবার ক্রাইম ইউনিট। এ ধরনের প্রচারণা যাতে আর না করে সেজন্য তাদের কাছ থেকে মুচলেকাও নেয়া হচ্ছে।

জায়েদ খানের একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) পর ডিবি এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের উদ্যোগ নেয়।

বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) বিকেলে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) স্পেশাল ক্রাইম ও সাইবার ইউনিটের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (এডিসি) মনিরুল ইসলাম জাগো নিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, জায়েদ খান একটি জিডি করেছিলেন। সেটির বিষয়ে আমরা কাজ করছি। ইউটিউবে জায়েদ খানের বিরুদ্ধে বিভিন্ন মানহানিকর গুজব ও তথ্য দিয়ে ভিডিও বানিয়ে প্রকাশ করা হয়েছে।

সেগুলোর কয়েকটি আমরা শনাক্ত করেছি। এসব ইউটিউব চ্যানেলের অ্যাডমিনদের একজন একজন করে ডাকা হচ্ছে। তাদের কাছ থেকে মুচলেকা নেয়া হচ্ছে, ভবিষ্যতে যাতে আর কারও বিরুদ্ধে এমন আপত্তিকর প্রচারণা না করে সে বিষয়েও তাদের সতর্ক করা হয়েছে।

এসব অভিযুক্ত ইউটিউবারদের মধ্যে দুজন নারী ও কয়েকজন পুরুষ বলেও জানা গেছে।

তাদের এসব চ্যানেল থেকে আপত্তিকর কনটেন্ট ডিলেট করতে নির্দেশ দিয়েছে ডিবি।

এডিসি মনিরুল ইসলাম বলেন, আমরা এখনো কাজ করছি, যতগুলো পাচ্ছি, তাদের বিরুদ্ধেই ব্যবস্থা নিচ্ছি। জিডি যেভাবে সুরহা করা হয়, আইনগতভাবে আমরা তাই করছি। জিডিকারী যদি মনে করেন মামলা করবেন, তিনি তাও করতে পারেন। তবে জিডির বিপরীতে কাউকে গ্রেফতার করা যায় না। আমরা কেবল তাদের চ্যানেল থেকে কনটেন্ট মুছে ফেলে মুচলেকা নিচ্ছি।

এ ব্যাপারে জায়েদ খান বলেন, ‘ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের এডিসি (ডিবি, সাইবার ক্রাইম) মনিরুল ইসলামের কাছে আমি লিখিতভাবে অভিযোগ দায়ের করি। ইচ্ছাকৃতভাবেই কয়েকটি ইউটিউব ও ভুঁইফোঁড় অনলাইন আমার বিরুদ্ধে ভিত্তিহীন তথ্য প্রচার করে।

তাদের বিরুদ্ধেই আমার অবস্থান। আমার লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে ডিবি সাইবার ক্রাইম থেকে আজ কয়েকজনকে ডাকা হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘যেসব নিউজ তারা করেছে আমার বিরুদ্ধে, ডিবির কাছে সেগুলোর কোনো প্রমাণ দিতে না পারলে আমি মামলা করবো তাদের নামে।’

এই মুহূর্তে ‘সোনার চর’ সিনেমার শুটিং নিয়ে ব্যস্ত জায়েদ খান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *