এফডিসিতে প্রধান নির্বাচন কমিশনার নিষিদ্ধ

অবশেষে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার পীরজাদা হারুনের স্বেচ্ছাচারিতার প্রতিবাদে তাকে নিষিদ্ধ করেছে চলচ্চিত্রের ১৭টি সংগঠন।

তারা জানায়, পীরজাদা হারুনকে চলচ্চিত্রের কোনও কাজে রাখা হবে না। পাশাপাশি বিএফডিসির এমডি নুজহাত ইয়াসমিনের পদত্যাগ দাবি করেছেন সংগঠনের নেতারা।

এর আগে গতকাল শুক্রবার ২৮ জানুয়ারি বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনে এফডিসিতে প্রবেশ করতে না দেওয়ায় আন্দোলনের ডাক দিয়েছে ১৭ সংগঠনের নেতারা। আজ শনিবার ২৯ জানুয়ারি বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির সভাপতি সোহানুর রহমান সোহান অন্য সংগঠনের সঙ্গে এ ঘোষণা দেন।

এফডিসির এমডির অপসারণ চেয়ে সোহানুর রহমান সোহান বলেন, ‘‘নির্বাচনে আমাদের বাধা না দিতে আমরা এফডিসি এবং নির্বাচন কমিশনকে বারবার জানিয়েছিলাম তবে তাতে কোনও কাজ হয়নি। আমাদের এফডিসিতে ঢুকতে দেওয়া হয়নি। তাই আমরা এমডির অপসারণ চাই। এমডির কুশপুত্তলিকা তৈরি করে সেখানে সব সংগঠন ‘এমডির অপসারণ চাই’ লিখবে।’’

পাশাপাশি তিনি হুমকি দিয়ে জানান, এমডিকে অপসারণ করা না হলে এফডিসি বন্ধ করে দেওয়া হবে এবং এফডিসিতে কোনো কাজ করতে দেওয়া হবে না।

এ সময় সোহান বলেন, ‘আগামীকাল কিছু সিনেমার কাজ আছে। সেগুলো সমাপ্ত করার পরই বন্ধ করা হবে এফডিসি।

আমরা কাল থেকে এমডিকে এফডিসিতে প্রবেশ করতে দেবো না। সকাল ৯টায় এফডিসির গেটে শুয়ে ব্যারিকেড দেবো আমরা। এমডিকে যদি এফডিসিতে ঢুকতে হয় তবে আমাদের লাশের ওপর দিয়ে ঢুকতে হবে।’